বৈঠক ৩ :: বিষণ্ণ শহরের দহন

বৈঠক ৩ :: বিষণ্ণ শহরের দহন

সাহিত্যের বিভিন্ন শাখার মধ্যে উপন্যাস অন্যতম। বর্ণনামূলক দীর্ঘাবয়ব এই গদ্য সাহিত্য মূলত লেখা হয় জীবন আর জীবনের প্রবৃত্তি ঘিরে। জীবনের এই রূপায়ণ উপন্যাসের মাধ্যমে পাঠকের কাছে বাস্তব হয়ে ধরা দেয়। বাংলা সাহিত্যে বিপুল ঋদ্ধি ও সমৃদ্ধির সাথে যারা উপন্যাস লিখে চলছেন, তাঁদের মধ্যে বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন অনন্য। তাঁর উপন্যাসে প্রতিফলিত হয়েছে প্রকৃতি, জনমানবের আনন্দ-বেদনা, ইতিহাস-ঐতিহ্য, সমকালের সামাজিক ও রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব্ব সঙ্কটের সামগ্রিকতা।
সেলিনা হোসেনের উপন্যাস ‘বিষন্ন শহরের দহন’ তেমনি একটি উপন্যাস। এখানে শহর হা হা করে হেসে ওঠে। নিজেকে প্রশ্ন করে- আর কয় হাজার বছর বেঁচে থাকলে বিষন্নতা কাটবে? শহরের মানুষদের দিবারাত্রির কথকতা এই উপন্যাসের মূল উপজীব্য। কালির তৃতীয় বৈঠকে উপন্যাসটি আলোচনা করা হবে।

আলোচক হিসেবে থাকছেন-

মালেকা ফেরদৌস
মনি হায়দার
স্বকৃত নোমান

‘বিষন্ন শহরের দহন’ থেকে অংশ বিশেষ পাঠ করবেন খাতুনে জান্নাত এবং শারমীন জাহান শাম্মী

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করবেন ইশরাত তানিয়া

দিন: ৭ই সেপ্টেম্বর ২০১৯
সময়: ৪:৪৫
স্থান: ইএমকে সেন্টার, মাইডাস ভবন
২৭ ধানমন্ডি, ঢাকা
ড্রেস কোড: আকাশী নীল (বাধ্যতামূলক নয়)

কালির তৃতীয় বৈঠকে সবার আন্তরিক আমন্ত্রণ রইল। শারদ শুভেচ্ছা সকলকে।

Leave a Reply